প্রফেসর ড. শংকর কুমার কুন্ডু

 

১৯৬৪ সালে পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলার এক সম্ভান্ত পরিবারে প্রফেসর ড. শংকর কুমার কুন্ডু জন্ম গ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম তারা পদ কুন্ডু এবং মাতার নাম আরতি রাণী কুন্ডু।
তিনি চাটমোহর শালিখা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাইমারী স্কুল সাটিফিকেট পরীক্ষা সমাপ্ত করেন। চাটমোহর দ্বিমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৯৭৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় ৪টি বিষয়ে লেটার মার্কসসহ ১ম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। এরপর তিনি বোর্ড স্টাইপেন্ডসহ চাটমোহর ডিগ্রি কলেজে পড়াশুনা করে কৃতিত্বে সাথে এইচএসসি পরীক্ষায় ১৯৮১ সালে ১ম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। বোর্ড স্টাইপেন্ড নিয়ে তিনি ১৯৮১ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ফলিত রসায়ন ও রাসায়নিক প্রযুক্তিবিদ্যা বিভাগে ১৯৮৫ সালে উচ্চতর ২য় শ্রেণিতে স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রি প্রাপ্ত হন এবং ১৯৮৬ সালে একই বিষয়ে ১ম শ্রেণিতে ১ম স্থান অর্জন করে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সমাপ্ত করেন।
১৯৯০ সালে তিনি খুলনার IPL Ges এবং বরিশালের Opsonin ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানীতে যথাক্রমে MR এবং Quality Control বিভাগে কিছুদিন চাকুরি করেন এরপর ১৯৯২ সালে পাবনা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক (বিজ্ঞান) পদে যোগদান করেন। তিনি ১৩তম এবং ১৪তম বিসিএস-এ যুগপৎ উত্তীর্ণ হন, কিন্তু বাবা-মায়ের স্বপ্ন পূরণের জন্য তিনি ১৪তম বিসিএস (সাধারণ শিক্ষা) এ ১৯৯৩ সালে যোগদান করেন। সরকারি মনসুর আলী কলেজ, সিরাজগঞ্জ দিয়ে তাঁর প্রভাষক জীবন শুরু হয় এরপর পাবনা সরকারি মহিলা কলেজ, সরকারি জাহাঙ্গীরপুর কলেজ, নওগাঁ, চাকুরি করে ২০১০ সাল হতে ২০১৬ সাল পর্যন্ত নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজ, চাঁপাইনবাবগঞ্জে রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৭ সালে অধ্যাপক পদে উন্নীত হয়ে নওগাঁ সরকারি কলেজে রসায়ন বিভাগে বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন। ০৬.০৬.২০১৮ খ্রি. তারিখে এই কলেজে উপাধ্যক্ষের দায়িত্ব পালনসহ বর্তমানে অধ্যক্ষ পদে (১৭.০৬.২০১৯ খ্রি. তারিখ হতে) দায়িত্ব পালন করছেন।
তাঁর সহধর্মিনী তপতী রানী কুন্ডু একজন গৃহিনী। তিনি দুই সন্তানের জনক। ১ম সন্তান ডা: মৌসুমি কুন্ডু (MBBS) এবং ২য় সন্তান ডা: তন্ময় কুন্ডু (DVM)।।
তিনি ২০০৭ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় হতে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ২০০৪ সালে নওগাঁ জেলার শ্রেষ্ঠ কলেজ শ্রেণি শিক্ষক বিবেচিত হন। ২০০০ সালে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণ পদক প্রাপ্ত হন এরপর তিনি একে একে হিউম্যান রাইটস পারসোনালিটি অ্যাওয়ার্ড জয় বাংলা পারসোনালিটি অ্যাওয়ার্ড, বঙ্গবীর ওসমানী অ্যাওয়ার্ড, অতীশ দ্বিপঙ্কর গোল্ডেন অ্যাওয়ার্ড, শেরে বাংলা গোল্ডেন অ্যাওয়ার্ডসহ অসংখ্য অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হন। তিনি একাধারে গবেষক ও কবি। বর্তমানে তিনি নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজে সার্বজনীন উৎপাদনমূখী ও গুণগত শিক্ষা নিশ্চিত করবেন মর্মে অধ্যক্ষ হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এঁর সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ই হলো তাঁর চলমান স্বপ্ন।